এবং ধূপবিক্রেতা…

14264970_775070529302612_7570705792613890767_n

বিশেষ প্রতিবেদন – তিনি বেহালা বাজান। তিনি বাঁশিও বাজান। তিনি অভিনেতা। তিনি নাটককার। তিনি নির্দেশক।… এবং তিনি গান গেয়ে ধূপও বেচেন, বেঁচে থাকার তাগিদে।

জীবনে টিকে থাকার অর্থ এক এক জনের কাছে এক এক রকম। লড়াইয়ের ক্ষেত্রটাও আলাদা আলাদা। মানুষ নিজের নিজের মত করে বেঁচে থাকার পথ খুঁজে নেন।

যার কথা বলছি, বলতে চাইছি তিনি যে খুব একটা কেউকেটা, তা নয়। মানে এখনও কেউকেটা হয়ে উঠতে পারেননি। তথাকথিত সাফল্যের প্রসাদে তৃপ্তির চুমুক এখনও তাঁর দেওয়া হয়ে ওঠেনি। কিন্তু তা বলে তাঁর কলম থেমে নেই, উদ্যম থেমে নেই, থেমে নেই ধূপবেচাও। গরজ বড় বালাই যে… কলম থামলে মন আটকা পড়বে, আর ধূপ বেচা থামলে সংসার… অতএব নাটকের গান আর কবিগুরুর গান ভরসা করে সুগন্ধি বিলোতে বিলোতে হেঁটে চলা মাইলের পর মাইল। কতটা পথ হাঁটলে পথিক হওয়া যাবে সে তো বলবে সময়…

14721696_1105882826197023_3302756031312373602_n

ভণিতা না করে নামটা এবার নাহয় বলেই ফেলা যাক। ভদ্রলোকটির নাম শুভাশিস খামারু। ফেসবুকের খোলা দেওয়ালের দেওয়াল লিখনে যার নির্ভেজাল স্বীকারোক্তি -“আমি বাড়ি বাড়ি ধূপ বেচি । এটা কাউকে জানাতে চাইনি । লজ্জ্বাতেই হয়তো । বিপাকে ও বিপদে পড়ে প্রথম ধরা পড়ি রংরূপের জয়ন্ত মিত্রর বাড়ির সামনে । তবুও লুকোনোই ছিল । নাটকের গান আর গুরুদেবের গান গেয়ে মাইল মাইল পথ সাইকেলে কাটিয়ে ধূপ বেচায় সন্দেহ অচেনাদের ছিল । কিন্তু চেনা  সাথীরা ক্রমশঃ এই সরল ও লুকোনো সত্যিটার সন্ধান পাওয়ায় – নানান বার পথে বেমক্কা ফাঁস হয়ে পড়ায় – ফেস বুকে অনেক দামী দামী বন্ধুরা আমাকে ত্যাগ করেছেন – মানে অ-বন্ধু করেছেন । তো আমার এক বিস্মিত ছাত্তরও আমার ধূপবেচা একটা ছবিসহ পোস্ট করায় ভাবলাম আর চেপে কি লাভ । এখন এই খুল্লামখুল্লা স্বীকারোক্তিতে আরো কিছু বন্ধু আমাকে ত্যাগ করবেন এই আশায় । প্লিজ এই ধূপবেচা মালটিকে আপনারা ত্যাগ করুন ……… সত্যিই তো বাড়ি বাড়ি ধূপবেচা মালটি কিনা পবিত্র নাট্যচর্চার অংশীদার !!! স্পর্ধা !!!!”

14358783_778779582265040_5120486056657091203_n

হ্যাঁ, স্পর্ধাই। যে সময় দাঁড়িয়ে মানুষকে কথা বলার আগে দুবার ভাবতে হচ্ছে, ছলনা–কপটতার আড়ালে প্রাণপণে মানুষ মুখ ঢাকছে মুখোশের আড়ালে, তখন স্পষ্ট কথা স্পষ্ট করে বলতে স্পর্ধা লাগে বইকি। সেই স্পর্ধা তাঁর আছে। তাই তিনি বলতে পারেন –‘ ক্ষমা করবেন তাঁরাও – যারা নাটককার হিসাবে অনেক সময় ভুল করে এই ধূপবেচা মালটিকে অজান্তে নাটককারের মহান সম্মান জানিয়েছেন।’ বিনয়ের সঙ্গে যে মানুষটি মনে করিয়ে দিতে পারেন – ‘দারিদ্র্য বড়ো কঠিন বেয়াদব এবং মহান শিক্ষাদাতা।‘
আসলে স্বপ্ন সকলে দেখতে পারে না, দেখাতেও না। কেউ কেউ পারেন। আর সেরকমই স্বপ্ন দেখাতে পারা এক মানুষ শুভাশিস। যিনি দাঁতে দাঁত চিপে জীবন লড়াই লড়তে লড়তেও আহ্বান জানান – ‘প্রকৃত ওপেন স্পেস বা মুক্ত নাট্যের প্রকাশ আর প্রয়াসের জন্য মন টানছে । “প্রকৃত” শব্দটা যারা মুক্তনাট্য নিয়ে কাজ করছেন তাদের কে হ্যাটা করতে নয় ভাই । নিজের কাজ নিয়েই শব্দটার প্রয়োগ । আসলে যে কারণে ওপেন স্পেস খুঁজে এই চেষ্টা তার ফয়দা তুলতে পারছি না । বাচিক ও আহার্য্যকে একটু দুয়োরাণি করে আঙ্গিক ও সাত্তিক কে একটু সুয়োরাণি লালন আরকি । ম্যাজিক – কালারুপাট্টা – আগুণ – দড়ি – লাঠিখেলা- জাগলিং – ট্রিপল স্টেপ রণপা ইত্যাদি মেশানো দৃশ্যবৈভব যদি গুরুত্ব পায় । অথচ নিটোল গল্পে ভুরভুর করা নাটকের ফ্লেভার ।’ ‘অভাবী বা টাকাপয়সা প্রয়োজন এমন সংকোচহীন ছেলে মেয়ে হলে ভালো হয় । কারণ শো এর শেষে ওড়না পেতে বীরত্বের সাথে টাকাপয়সা তুলে সমান ভাবে ভাগ বাঁটোয়ারা করে নিয়ে বাড়ি ফিরব তো।‘

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s